ঢাকা, ১৬ জুন, ২০২৪
Banglar Alo

১১ চিকিৎসকের নেই ৯ জনই, ৬ লাখ মানুষের ভোগান্তি

Publish : 08:14 AM, 08 May 2024.
১১ চিকিৎসকের নেই ৯ জনই, ৬ লাখ মানুষের ভোগান্তি

১১ চিকিৎসকের নেই ৯ জনই, ৬ লাখ মানুষের ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১১ চিকিৎসকের মধ্যে ৯ জন চিকিৎসকই নেই। ৫০ শয্যাবিশিষ্ট এই হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় জটিল রোগে শহরমুখী হতে হচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, একজন সার্জন, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, স্ত্রী রোগ বিশেষজ্ঞ ও ৬ জন মেডিকেল কর্মকর্তা নেই এ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এর মধ্যে দুজন চিকিৎসক রয়েছেন ফাউন্ডেশন প্রশিক্ষণে। মাত্র দুই চিকিৎসক দিয়ে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে উপজেলার ৬ লাখ ২০ হাজার মানুষের চিকিৎসার একমাত্র ভরসা ৫০ শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। আর প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে সকাল প্রায় ৯টা পর্যন্ত থাকছে না ডাক্তার। অন্যদিকে উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতেও ডাক্তার নেই বহু বছর।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এখন কর্মরত রয়েছেন ৩ জন। আবার এই ৩ জনের মধ্যে একজন হলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, যিনি অফিশিয়াল কাজে সবসময় থাকেন ব্যস্ত। এখন শুধু দুজন ডাক্তার এই হাসপাতালের আউটডোর ও ইনডোরে রোগীদের দেখাশোনা করছেন। গত এক বছরে বিভিন্ন সময়ে এসব ডাক্তার চলে যাওয়ায় এই শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে।

সোমবার (৬ মে) সরেজমিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দেখা যায়, দুটি ওয়ার্ডে দুপুর পর্যন্ত ৫৪ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে পুরুষ ৩০, মহিলা ২০ এবং শিশু ৪ জন। দুই মেডিকেল কর্মকর্তা সার্বক্ষণিক এই ৫৪ জন রোগীকে সেবা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এর ফলে মেডিকেল কর্মকর্তা দিয়ে হাসপাতালে আউটডোরে রোগী দেখা বন্ধ হয়ে গেছে তবে আউটডোরে প্রাথমিক চিকিৎসা দিচ্ছে উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা (সেকমো)। বর্তমানে হাসপাতালে জরুরি বিভাগ, বহির্বিভাগ ও আন্তঃবিভাগে বা ইনডোরে সেবা কার্যক্রম চলমান আছে। তবে চিকিৎসক সংকট থাকায় চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হচ্ছে।

রোগীরা হাসপাতালে কাক্সিক্ষত সেবা পাচ্ছেন না বিষয়টি স্বীকার করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শারমিন আলম বলেন, ডাক্তার সংকটের কারণে রোগীদের প্রায়ই অন্য হাসপাতালে রেফার (স্থানান্তর) করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, জরুরি ভিত্তিতে ডাক্তার দেওয়ার জন্য সিভিল সার্জনের মাধ্যমে কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছি। এছাড়া সব সময় অন কলে থাকি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমার নজরে এসেছে। দ্রুত ডাক্তার সংকট নিরসনের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোসহ সামনের জেলা উন্নয়ন সভায় বিষয়টি উপস্থাপন করব।

অন্যদিকে, সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন রাম পদ রায় বলেন, শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক সংকট আছে। চিকিৎসকের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। আশা করছি, শিগগিরই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জন্য চিকিৎসক পাব।

Banglar Alo

সম্পাদক ও প্রকাশক
বাংলার আলো মিডিয়া লিমিটেড

৮৯ বিজয় নগর, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম শরণি, আজিজ কো-অপারেটিভ মার্কেট (৫ম তলা)। ঢাকা-১০০০

নিউজঃ +৮৮ ০১৩৩২৫২৮২৪১ || [email protected] || বিজ্ঞাপণঃ +৮৮ ০১৩৩২৫২৮২৪৩ || [email protected]

©২০২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত || banglaralo24.com

Develop by _ DigitalSolutions.Ltd
শিরোনাম ডরিনের ফেসবুক গায়েব, জানিয়েছেন ডিবিকে শিরোনাম সৌদির সঙ্গে মিলিয়ে একদিন আগেই সাকিবদের ঈদ উদযাপন শিরোনাম শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের মধ্য দিয়ে শেষ হলো হজ শিরোনাম বাংলাদেশিদের ক্রেডিট কার্ডে খরচ ভারতে সবচেয়ে বেশি শিরোনাম ফাঁকা সড়কে প্রাণ জুড়ায় মানুষের, সবসময় যদি এমন হতো! শিরোনাম রেমিটেন্স প্রবাহে ঈদের আমেজ, বাড়ল রিজার্ভ